বিগণবিডি ডেস্ক:
পুরো বিশ্বকে ওলটপালট করে দেওয়া করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের নেশায় অতি ব্যস্ত সময় পার করছেন বিশ্বের নামকরা সব বিজ্ঞানী ও প্রতিষ্ঠান। এবার এই ভ্যাকসিন আবিষ্কারে একসাথে লড়ার ঘোষণা দিয়েছে ব্রাজিল ও চীন। গত বৃহস্পতিবার এ নিয়ে একটি চুক্তিও হয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ব্রাজিলের শীর্ষস্থানীয় চিকিৎসা গবেষণা কেন্দ্র ‘দ্য বাটান্টান ইনস্টিটিউট’ ও চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেক লিমিটেডের সঙ্গে এই চুক্তি হয়েছে।

বাটান্টানের প্রেসিডেন্ট দিমাস কোভাস এবং সাও পাওলোর গভর্নর জোয়াও দোরিয়া বলেন, চীনের পরীক্ষাগারে তৈরি করোনার সম্ভাব্য ওই ভ্যাকসিনটি ইতোমধ্যে ক্লিনিকাল ট্রায়ালের তৃতীয় পর্যায়ে প্রবেশ করছে এবং আগামী বছরের জুনের মধ্যে লক্ষ লক্ষ ব্রাজিলিয়ানকে টিকা দেওয়ার জন্য তা প্রস্তুত হতে পারে।

বাটান্টানের প্রেসিডেন্ট কোভাস জানিয়েছেন, তৃতীয় ধাপে ব্রাজিলে ৯ হাজার স্বেচ্ছাসেবীর দেহে সম্ভাব্য ওই ভ্যাকসিনটি প্রয়োগের মাধ্যমে এর পরীক্ষা চালানো হবে। একবার কার্যকর হিসেবে প্রমাণিত হয়ে গেলে বাটান্টান এই প্রযুক্তিটির স্বত্ত্বাধিকারী হিসেবে বৃহৎ পরিসরে ব্রাজিলে ভ্যাকসিনটির ডোজ উৎপাদন শুরু করবে।